Breaking News
Home / অন্যান্য / বিভিন্ন প্রকার দাগ দূর করার সহজ কিছু উপায়!

বিভিন্ন প্রকার দাগ দূর করার সহজ কিছু উপায়!

Spread the love

যদি আপনার বাসায় ছোট বাচ্চা থাকে তাহলে কার্পেট, ম্যাট, এবং বিছানায় গ্লিটার, চকলেট, আইসক্রিম, সস, মাটি এবং অন্যান্য দাগ লাগাটা খুবই স্বাভাবিক। বেশির ভাগ মায়েরাই এটা জানেন যে এই সমস্ত দাগ দূর করাটা অনেক সময় বেশ কঠিন মনে হয়। এই সমস্ত দাগ দূর করার জন্য কয়েকটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে আপনাকে। তাই আজ বিডি রমণী আপনাদের দিচ্ছে বিভিন্ন প্রকার দাগ দূর করার সহজ কিছু উপায়! আসুন আজ আমরা এমন কিছু পদ্ধতি জেনে নিই যার মাধ্যমে সহজেই বিভিন্ন প্রকার দাগ দূর করা যায়।

১। যদি জামায় কলমের কালির দাগ লেগে যায় তাহলে এই কালির দাগের উপর ২-৩ ফোঁটা হ্যান্ড স্যানিটাইজার লাগান। টুথব্রাশ দিয়ে দাগের উপর ঘষুন এবং বেকিং পাউডারের পেস্ট লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে দিন। তারপর গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২। কাদা মাটির মত কঠিন দাগ দূর করার জন্য সবচেয়ে কার্যকরী উপায় হচ্ছে ব্লিচিং পাউডার ব্যবহার করা। এর জন্য ২ টেবিল চামচ ব্লিচিং পাউডার পানির সাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার এই পেস্টটি কাদার দাগের উপর লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দাগ গায়েব হবে।

৩। জামা কাপড় বা বিছানার চাদর থেকে প্রস্রাবের দাগ দূর করার জন্য গরম পানি ও সাদা ভিনেগার মিশিয়ে তাঁর মধ্যে কাপড়টি ভিজিয়ে রাখুন। যদি সূক্ষ্ম সুতার কাপড় হয় তাহলে ঠান্ডা পানি ব্যবহার করবেন। এইভাবে আধা ঘণ্টা যাবত ভিজিয়ে রাখুন। তারপর কাপড়টি নিংড়ে নিয়ে স্বাভাবিক ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

৪। বাহিরে খেলতে গেলে বাচ্চার জামায় ঘাসের দাগ লাগতে পারে। সাদা কাপড়ের ঘাসের দাগ সাধারণ ভাবে ধুয়ে দূর করাটা কঠিন। তাই ঘাসের দাগযুক্ত কাপড়টিকে ভিনেগার দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন আধা ঘন্টা বা তার বেশি সময়। তারপর স্বাভাবিক ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

৫। কাপড়ে এমন কোন কিছুর দাগ লাগলে যে বোঝা যাচ্ছেনা কিসের দাগ লেগেছে সেক্ষেত্রে নন জেল টুথপেস্ট এর সাথে ১ টেবিল চামচ ৩% হাইড্রোজেন পারঅক্সাইড মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিয়ে একটি নরম কাপড়ে লাগিয়ে দাগের জায়গায় ঘষুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। যেকোন কিছুর দাগই এভাবে দূর করা যায়।

৬। কাপড় থেকে দুধ, চকলেট বা রক্তের দাগ দূর করার জন্য মিট টেন্ডারাইজার ব্যবহার করা যায়। দাগের জায়গাটিকে একটু ভিজিয়ে তার উপর মিট টেন্ডারাইজার ছিটিয়ে দিয়ে ১ ঘন্টা রেখে দিন। ব্রাশ দিয়ে শুকনো টেন্ডারাইজার ঝেড়ে ফেলুন, তারপর স্বাভাবিক ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

৭। জুস, ব্ল্যাক কফি বা চা এবং বমির দাগ উঠানোর জন্য সাদা ভিনেগার দিয়ে ভিজিয়ে রাখে ধুয়ে ফেললেই দাগ দূর হবে। যদি দাগের পরিমাণ বেশি হয় তাহলে ৩ ভাগ ভিনেগার ও ১ ভাগ পানির মিশ্রণে সারারাত কাপড়টি ভিজিয়ে রাখুন।

৮। ঘাম বা ডিওডোরেন্ট এবং রক্তের দাগ দূর করার জন্য লবণ অনেক কার্যকরী ও সহজলভ্য। দাগের জায়গাটি ভিজিয়ে লবণ দিয়ে রাখুন, এতে লবণ জোঁকের মত দাগ শুষে নিবে। তারপর কাপড়টি ধুয়ে ফেলুন।

৯। চুইং গাম কাপড়ে লেগে গেলে প্রথমে বরফের টুকরা দিয়ে জায়গাটি ম্যাসাজ করুন। ১০ মিনিট পর ছুরি দিয়ে কাপড় থেকে গাম আলাদা করে নিন। যদি না উঠতে চায় তাহলে এর উপরে সামান্য গ্লিসারিন দিয়ে রাখুন তারপর পুনরায় চেঁছে উঠিয়ে ফেলুন।

১০। আইসক্রিমের দাগ দূর করার জন্য লেবুর রস লাগিয়ে রেখে আস্তে আস্তে ঘষে নিন। তারপর সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

১১। কাপড়ের চিতির দাগ দূর করার জন্য লবণ ও লেবুর রস দিয়ে পেস্ট তৈরি করে চিতি পরা স্থানে লাগিয়ে সূর্যের আলোয় বিছিয়ে রাখুন। তারপর স্বাভাবিক ভাবে ধুয়ে ফেলুন।

টিপস
– আপনি পরিধান করে আছেন এমন কোন কাপড়ে কোন কিছুর দাগ লাগার সাথে সাথে টিস্যু পেপার ভিজিয়ে দাগটি যতদূর সম্ভব মুছে ফেলুন।

– কাপড়টি খুলার পর পুনরায় দাগের জায়গাটি ভিজিয়ে লবণ দিয়ে রাখুন। অনেকে কর্ণ স্টার্চ বা ট্যালকম পাউডার ও ব্যবহার করেন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট এভাবে রেখে দেয়ার পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

– বিভিন্ন ধরণের দ্রাবকের বিভিন্ন রকমের প্রতিক্রিয়া হয় এজন্য দাগ উঠানোর পরে কাপড়টি পুরোপুরি শুকিয়ে নিয়ে তারপর ধুবেন।
লেখাটি পছন্দ হইলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।
নিয়মিত সুন্দর সুন্দর টিপস পেতে আমাদের ফেসবুক পেজ এ অ্যাক্টিভ থাকুন।

Check Also

অন্যের বাড়িতে কাজ করে খেতে হয় যে সাবেক এমপির

Spread the loveঅন্যের বাড়িতে কাজ করে- রাজনীতি করেন অথবা করেছেন, আবার ব্যক্তিগত জীবনে প্রচুর অর্থকষ্টে …